Pages Menu
TwitterRssFacebook
Categories Menu

Posted by on Feb 17, 2016 in গর্ভধারণ, গর্ভবতী মা |

প্রেগনেন্সি এবং শরীরে আয়রনের চাহিদা

প্রেগনেন্সি এবং শরীরে আয়রনের চাহিদা

গর্ভকালীন সময়ে মায়েদের যেসব ওষুধ খেতে চিকিৎসকেরা পরামর্শ এন এর মধ্যে সবচেয়ে বেশি সম্ভবত আসে আয়রন ট্যাবলেট এর কথা। মায়েদের শরীরে এই সময় আয়রন অনেক বেশি প্রয়োজন। কেন এই সময় আয়রন এর প্রয়োজনীয়তা এবং প্রতিদিনের নির্দিষ্ট চাহিদা সম্পর্কে জেনে নেই কিছু তথ্যঃ

আয়রনের প্রয়োজনীয়তাঃ

১। আয়রন হিমোগ্লোবিন তৈরিতে অনেক বেশি সহায়ক। এটি গর্ভবতী মায়ের শরীরে প্রয়োজনীয় হিমগ্লোবিন তৈরিতে অনেক বেশি সহায়ক ভূমিকা পালন করে।

২। আয়রন মাইগ্লোবিন ( একটি প্রোটিন যা থেকে শরীরের মাংসপেশীতে অক্সিজেন যায়) তৈরির অনেক বড় এবং মুখ্য একটি উপাদান।

৩। শরীরের ইমিউন সিস্টেম সঠিক পথে রাখতে আয়রন অনেক বেশি গুরুত্বপূর্ণ।

৪। গর্ভকালীন সময়ে শরীরের পরিবর্তনের সাথে সাথে গরভার শিশুর জন্য এসব উপাদানই অনেক বেশি মাত্রায় প্রয়োজন যা আয়রন ছাড়া পাওয়া সম্ভব নয়। তাই এই সময়  অতিরিক্ত আয়রনের ঘাটতি মেটাতে মায়েদের আয়রন এর সাপ্লিমেন্ট খেতে বলা এতে শিশুর ওজন, এবং শারীরিক সবকিছু স্বাভাবিক থাকে।

একজন নারীর শরীরে আয়রনের চাহিদাঃ

গর্ভবতী মায়েদের ক্ষেত্রে তাঁদের শরীরে সাধারণত প্রতিদিন ২৭ মিলিগ্রাম আয়রনের প্রয়োজন হয়। সাধারণ নারীদের ক্ষেত্রে এর মাত্রা ১৮ মিলিগ্রাম।

আয়রনের প্রধান উৎসগুলোঃ

একজন মা তাঁর শরীরের প্রয়োজনীয় আয়রন পেতে পারে নিচের খাবারগুলো থেকেঃ

১। ১ কাপ ফর্টিফাইড সিরিয়াল- ২৪ মিলিগ্রাম।

২। ১ কাপ সেদ্ধ শিমের বিচি- ৫.২ মিলিগ্রাম।

৩।  ১ কাপ সেদ্ধ মটরশুঁটি- ৪.৮ মিলিগ্রাম।

৪। ১ আউন্স ভাঁজা মিষ্টি কুমড়া বিচি- ৪.২ মিলিগ্রাম।

৫। ১/২ কাপ সেদ্ধ পালংশাক- ৩.২ মিলিগ্রাম।