Pages Menu
TwitterRssFacebook
Categories Menu

Posted by on May 23, 2014 in ছোট্টমনি, জেনে রাখা ভাল, স্কুলের পথে, হাটি হাটি পা |

শিশুর জন্য ক্ষতিকর ছয় ধরণের ঔষুধ

শিশুর জন্য ক্ষতিকর ছয় ধরণের ঔষুধ

বড়দের শরীরের তুলনায় শিশুদের শরীর অনেক বেশি সংবেদনশীল। তাই যে কোন উপায়ে বিভিন্ন ভাবে আপনার শিশু সংক্রমিত হতে পারে বিভিন্ন রোগে। শিশুদের ওষুধ নিয়ে বাবা-মায়ের সচেতন থাকা উচিৎ সবসময়। কিছু ঔষুধ আছে যা আপনার শিশুর শরীরের জন্য অনেক ক্ষতিকর হয়ে দাঁড়াতে পারে। তাই জেনে নিন এমনি ছয় ধরনের ঔষুধের কথা যা আপনার সন্তানকে দেবেন না কখনোই।

  • এসপিরিনঃ কখনোই আপনার সন্তানকে এসপিরিন বা এসপিরিন আছে এমন কোন ঔষুধ দেবেন না। এসপিরিনকে অনেক সময় স্যালিসাইলেট নামক এসিড বলা হয় যা শিশুদের জন্য ক্ষতিকর।
  • বেশি মাত্রায় ঠান্ডা ও কাশির ঔষুধঃ ঠান্ডা ও কাশির ঔষুধের ব্যপারে অনেক গবেষকের অবস্থান বিপরীত দিকে। এটি শিশুর ক্ষতির কারণ হয়ে দাঁড়াতে পারে যখন তাকে প্রয়োজনের চেয়ে বেশি মাত্রার ঔষুধ খাওয়ানো হয়। এর ফলে ঘুমের সমস্যা, র‍্যাশের সমস্যা, অতিরিক্ত হৃদস্পন্দনের সমস্যা দেখা যায়। তাই খেয়াল রাখুন ওষুধের সঠিক মাত্রা সম্পর্কে।
  • বমি প্রতিরোধক ঔষুধঃ সন্তানকে বমি প্রতিরোধক কোন ঔষুধ পারতপক্ষে দেওয়া উচিৎ নয়। কারন বমির ব্যপারটি খুব কম সময়ের জন্য দেখা দেয় এবং এটি সাধারনত এমনিতেই ঠিক হয়ে যায়। তাই আপনার সন্তান বেশি পরিমাণে বমি করতে দেখা হলে কোন ঔষুধ খাওয়ানোর আগে চিকিৎসকের পরামর্শ নিন।
  • বড়দের ঔষুধ ছোট ডোজেঃ অনেকেই ভেবে থাকেন শিশুর শারীরিক সমস্যা ও বড়দের সমস্যার সমাধান এক রকমই হবে, শুধু একটু কম ডোজে ঔষুধ দিলেই হবে। কিন্তু শিশুদের সমস্যার ক্ষেত্রে সমাধান অনেক বেশি সাবধানতার সাথে নিতে হবে। এ ব্যপারে নিজে না জেনে সিদ্বান্ত নিয়ে শিশুকে মারাত্বক কোন সমস্যার দিকে ঠেলে দেবেন না।
  • অন্য প্রেসক্রিপশনের ঔষুধঃ নিজের মতো সমস্যা বুঝে নিয়ে অন্য প্রেসক্রিপশনের ওষুধ কিংবা অন্য সমস্যার ঔষুধ শিশুকে খাইয়ে দেয়া যাবে না কোনভাবেই। এতে হিতে বিপরীত হওয়ার সম্ভাবনা বেশি। এক্ষেত্রে চিকিৎসকের পরামর্শ নেওয়াটাই শ্রেয়।
  • মেয়াদোত্তীর্ন ঔষুধঃ শিশুকে ঔষুধ খাওয়ানোর আগে ভালভাবে নিশ্চিত হোন যে ঔষুধের মেয়াদোত্তীর্নের সময় পার হয়ে যায়নি। মেয়াদোত্তীর্ন ঔষুধ মারাত্বকভাবে আপনার সন্তানের ক্ষতি করতে পারে।