Pages Menu
TwitterRssFacebook
Categories Menu

Posted by on Jun 5, 2014 in ছোট্টমনি, জেনে রাখা ভাল, হাটি হাটি পা |

শিশুকে দুধ খাওয়ানোর সময়ে মায়ের যা যা খেতে মানা….

শিশুকে দুধ খাওয়ানোর সময়ে মায়ের যা যা খেতে মানা….

জন্মের পর প্রথম চার মাসে শিশুকে সাধারণত মায়ের দুধ ছাড়া অন্য কোন কিছু খাওয়াতে চিকিৎসকেরা বারণ করে থাকেন। তাই যেহেতু শিশু শুধুমাত্র এই একমাত্র মায়ের দুধ খেয়েই বেঁচে থাকে তাই শিশুর শারীরিক ও মানসিক বৃদ্ধির গুরুত্বপূর্ণ এ সময়ে মায়ের নিজের খাবার দাবারের দিকে অতিরিক্ত নজর রাখা অত্যাবশ্যক। মায়ের খাবারের উপরই শিশুর পুষ্টিমান ও শিশুর সুবিধা-অসুবিধা নির্ভর করে। তাই হবু ময়েরা এবং যারা সদ্য মা হয়েছেন তারা জেনে নিন কি খেলে আপনার শিশুর কি ধরণের সমস্যা হতে পারেঃ

চা কিংবা কফিঃ ক্যাফেইন উপযুক্ত মাত্রায় মায়ের দুধ তৈরিতে বাঁধা সৃষ্টি করে থাকে। একজন প্রাপ্ত বয়স্ক মানুষের তুলনায় শিশুর শরীরে ক্যাফেইন ধারণ করার ক্ষমতা স্বাভাবিকভাবেই কম থাকে। আর তাছাড়া ঘুমের সময়ও ক্যাফেইন সমস্যা সৃষ্টি করে থাকে। তাই শিশুকে দুধ খাওয়ানোর সময় ক্যাফেইন সমৃদ্ধ কফি কিংবা চা ত্যাগ করাই শ্রেয় মা ও শিশুর জন্য।

চকোলেটঃ কফির মতো চকোলেটেও থাকে ক্যাফেইন আর সেই সঙ্গে প্রচুর পরিমাণে চিনি। শিশুর দুর্বলতার পেছনে আপনার খাদ্য তালিকায় থাকা চকোলেটও দায়ী হতে পারে। তাই কিছুদিনের জন্য নিজের খাদ্য তালিকা থেকে বাদ দিন সব রকমের চকোলেট।

ঝাল- মশলা যুক্ত খাবারঃ অতিরিক্ত ঝাল, মশলাযুক্ত খাবার এই সময়টাতে পুরোপুরি বাদ দেওয়া উচিৎ মায়ের। মা যা খায় তার পুষ্টিই শিশু পেয়ে থাকে বুকের দুধের মাধ্যমে। আর ঝাল মশলাযুক্ত খাবার এই পুষ্টিমানকে বেশিরভাগ অংশেই নষ্ট করে দেয়। এছাড়া এটি শিশুর পেটের সমস্যা কারণও হতে পারে।

রসুনঃ মা যদি রসুন বা রসুনের তৈরি কোন খাবার খায় তবে মায়ের দুধে এ ধরণের গন্ধ আসতে পারে যার ফলে শিশুর স্বাদের ক্ষেত্রে পরিবর্তন আসতে পারে আর শিশুর দুধ খাওয়াতে অনীহা আসতে পারে।

গম ও গমের তৈরি খাবারঃ অনেক শিশুর মধ্যেই ছোটবেলায় গম বা গমের তৈরি খাবারে এলার্জি হবার সম্ভাবনা থাকে। যদি গম জাতীয় খাবার খাওয়ার পর শিশুর পেটে ব্যথা, শরীরে অস্বস্তি দেখা যায় তবে এসব খাবার গ্রহণ থেকে নিজেকে বিরত রাখুন। তবে যদি আপনার সন্তানের কোন সমস্যা না হয় তবে খেতে পারেন নির্দ্বিধায়।