Pages Menu
TwitterRssFacebook
Categories Menu

Posted by on Sep 29, 2015 in গর্ভবতী মা |

গর্ভাবস্থার দ্বিতীয় তিন মাস ও মায়ের কিছু লক্ষন

গর্ভাবস্থার দ্বিতীয় তিন মাস ও মায়ের কিছু লক্ষন

আপনারা ইতোমধ্যে গর্ভাবস্থায় মায়ের প্রথম তিন মসের বিভিন্ন দিকসমূহের সাথে পরিচিত হয়েছেন আগের লেখাসমূহ থেকে। প্রথম তিন মাসে মায়ের শরীর ও মনের নানা দিক নিয়ে আলোচনা করা হয়েছে সেখানে। আজ জেনে নিন দ্বিতীয় তিন মাসে মায়ের শারীরিক ও মানসিক অবস্থা সম্পর্কে।
একটি সম্পূর্ন নতুন প্রান আপনার শরীরে ধীরে ধীরে বেড়ে উঠছে, এই বিষয়টি সর্বপ্রথম টের পাওয়া শুরু হয় সাধারণত গর্ভাবস্থার তেরতম সপ্তাহ থেকে।সাথে সাথে পরিবর্তন আসতে থাকে মায়ের মন ও শরীরে। তাই চলুন জেনে নেই চতুর্থ থেকে ষষ্ঠ মাস পর্যন্ত একজন গর্ভবতী মায়ের বিভিন্ন দিকগুলো-
• প্রথম তিনমাসে যে ধরনের মর্নিং সিকনেস বা বমি বমি ভাবের ব্যপার থাকে,তা আস্তে আস্তে দূর হতে শুরু করে। মা নিজের শরীর ও মনকে এই ধরনের অসুস্থতার সাথে খাপ খাইয়ে নেয় ততদিনে। যদি এই সময়েও এই সমস্যাগুলো কেটে না যায় তখন ডাক্তারের পরামর্শ অনুযায়ী ভিটামিন বি-৬ সেবন করতে হবে।
• শারীরিক সমস্যার জন্য পেটে হালকা ব্যাথা, কোমর ও পিঠে ব্যথা ইত্যাদি সমস্যা বেড়ে যেতে পারে এই সময়। তাছাড়া শিশু এই সময়েই তার মাকে নিজের অস্তিত্ব জানান দেওয়া শুরু করে থাকে। একজন মা তখন শিশুর নড়াচড়া বুঝতে শুরু করে।
• স্নায়ুচাপ গর্ভাবস্থায় এই তিন মাসে আরেকটি সাধারন বিষয়। ঘন ঘন প্রস্রাবের প্রবনতা, শিশুকে নিয়ে নানা ধরনের চিন্তা ভাবনা, গর্ভাবস্থায় নানা ধরনের ভয় গর্ভবতী মাকে স্নায়ুচাপে ভোগাতে পারে।তবে এতে দুশ্চিন্তার কারণ নেই। মায়ের সাথে কেউ সার্বক্ষনিক মানসিক সহায়তা দিলেই তা ঠিক হয়ে যাবে।
• শিশুর দেহের ক্রমাগত বৃদ্ধির ফলে মায়ের শরীরে বিশেষ করে তলপেটে স্পষ্ট পরিবর্তন দেখা যায়। তাই এসময় মায়ের ওজন উল্লেখযোগ্য পরিমাণে বৃদ্ধি পায়।শরীরে বিভিন্ন স্থানে বিশেষ করে তলপেটের চামড়া কিছু পরিবর্তন দেখা যায় যা বেশিরভাগ সময়েই সন্তান জন্মের পরপর মিলিয়ে যায়।
• মায়ের মনে সন্তানকে নিয়ে বিভিন্ন আশংকা, দুশ্চিন্তা দানা বাঁধে বলে এ সময় অনেক গর্ভবতী মা দুঃস্বপ্ন দেখে থাকেন। কিছুটা দুশ্চিন্তা করা খুবই সাধারণ ব্যপার কিন্তু খেয়াল রাখতে হবে কোনভাবেই যেন তা অতিরিক্ত আকার ধারণ না করে।
এভাবেই একজন গর্ভবতী মা তার বিশেষ সময়ের মাঝের তিনটি মাস অতিবাহিত করে থাকেন।