Pages Menu
TwitterRssFacebook
Categories Menu

Posted by on Jan 10, 2016 in ছোট্টমনি |

ছোট্ট সোনামনির জিহ্বা পরিষ্কার করবেন যেভাবে…..

ছোট্ট সোনামনির জিহ্বা পরিষ্কার করবেন যেভাবে…..

খুব ক্ষুদ্র ক্ষুদ্র বিষয়েও একেবারে সুগভীর নজর থাকা জরুরী যখন নজর রাখার বিষয় হয়ে পড়ে আপনার নিজের সন্তান। খুব ছোট ছোট বিষয়ও অনেকসময় শিশুর জন্য বড় সমস্যা হতে পারে, কিংবা শিশুর অস্বস্তির কারণ হতে পারে। সোনামনির জিহ্বা পরিষ্কার করা এমনই একটা সমস্যা হয়ে দাঁড়াতে পারে। একে তো শিশুকে পরিচ্ছন্ন রাখার ব্যাপার, আবার অন্যদিকে ছোট্ট শিশুর জিহ্বাতে যাতে ব্যাথা না পায় সেদিকেও নজর দেওয়া জরুরী। তাই খুব ছোট বা সহজ ভাবলেও কাজটি একটি সহজ নয় বাবা, মায়ের জন্য। তাই হাঁটিহাঁটিপা আজ জানিয়ে দিচ্ছে শিশুর জিহ্বা পরিষ্কার করার গুরুত্বপুর্ণ কিছু দিক।
কেন শিশুর জিহ্বা পরিষ্কার করা উচিৎ?
শিশুর জিহ্বা পরিষ্কারের বেশ কিছু গুরুত্বপুর্ণ কারণ রয়েছে। এরমধ্যে অন্যতম একটি কারণ হলো, জিহ্বা নিয়মিতভাবে পরিষ্কার না করা হলে তা থেকে ইনফেকশন দেখা দিতে পারে। এছাড়া খাবারের কণা জিহ্বায় লেগে থেকে শিশুর মুখে দুর্গন্ধ হতে পারে, ব্যাকটেরিয়ার সংক্রমণ বাড়তে পারে বহুগুণে। তাই জিহ্বা ও মুখের ভেতরের অংশ পরিষ্কার শিশুর জন্য অনেক বেশি গুরুত্বপুর্ণ।
কিভাবে শিশুর জিহ্বা পরিষ্কার করবেন?
• .শিশুর জিহ্বা পরিষ্কার করার আগে নিশ্চিত হোন যে আপনার হাত পরিষ্কার রয়েছে।
• ছোট একটা গামলায় কুসুম গরম পানি নিন, হাতের আঙ্গুলে নরম ও পরিষ্কার একটি কাপড় পেঁচিয়ে নিন। কাপড়টি পানিয়ে ভিজিয়ে নিন।
• শিশুকে অন্য বাহুতে নিয়ে কিংবা কোলে রেখে শান্ত ভঙ্গিতে কিছুক্ষন খেলা করতে চেষ্টা করুন।
• এরপর ধীরে ধীরে শিশুর মুখ আঙ্গুলের সাহায্যে খুলে নিন। অন্যহাতে শিশুকে আদর করে হাত বুলিয়ে দিন। এতে সে বুঝবে যে কোন ক্ষতিকর বা ব্যাথা পাওয়ার মত কিছু তার সাথে ঘটতে যাচ্ছেনা।
• এরপর আলতোভাবে শিশুর মুখ কাপড়ের সাহায্যে পরিষ্কার করে নিন। পুরো জিহ্বার উপর গোল করে বারবার ঘুরিয়ে নিয়ে পরিষ্কার করুন।
• এরপর ধীরে ধীর শিশুর মাড়ি ও মুখের ভেতরের অংশও পরিষ্কার করে নিন।
• এভাবে পরিষ্কার করার পরেও যদি শিশুর জিহবায় কোন সাদা দাগ বা প্রলেপ দেখা যায় তবে চিকিৎসকের পরামর্শ নিন।
• শিশুকে মুখ খোলার জন্য জোর করবেন না।