Pages Menu
TwitterRssFacebook
Categories Menu

Posted by on Sep 1, 2014 in গর্ভধারণ, গর্ভবতী মা |

প্রেগনেন্সিঃ প্রতিক্রিয়া এবং পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া (পর্ব-দুই)

প্রেগনেন্সিঃ প্রতিক্রিয়া এবং পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া (পর্ব-দুই)

গর্ভকালীন সময়ের নানা পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া নিয়ে এর আগেও বেশ কিছু লেখালেখি হয়েছে। মায়ের শারীরিক অবস্থা, শিশুর অবস্থান এবং মানসিক চাপ সবকিছু যাচাই করে একেক জনের জন্য একেক রকম পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া দেখা যেতে পারে। চলুন আজ আবারো এমন আরো কিছু পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া জেনে নেওয়া যাক।

পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া- শরীরে পানি জমে ফুলে যাওয়াঃ

  • গর্ভকালীন সময়ে মায়ের শরীরে বিশেষ করে হাত ও পায়ে পানি বা অন্যান্য তরল জমে ফুলে যেতে পারে। বিশেষত গরমকালে এই সমস্যা আরো বেশি ভয়াবহ হয়ে দেখা দিতে পারে। বেশিক্ষন দাঁড়িয়ে বা বসে থাকলে এবং আতিরিক্ত ব্লাড প্রেশারের কারণে এই সমস্যা দেখা দিতে পারে।

এই সমস্যা দূরীকরনে বেশিক্ষন দাঁড়িয়ে বা বসে না থাকা, লবণাক্ত খাবার পরিহার করা, তাজা ফলমূল খাওয়া ইত্যাদি কাজে দিতে পারে।

পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া- উচ্চরক্তচাপঃ

  • গর্ভকালীন সময়ে উচ্চরক্তচাপ আরেকটি গুরুত্বপূর্ণ পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া। গর্ভবতী মায়েদের বমি করা, মাথা ব্যাথা, চোখে সমস্যা হওয়া সহ এই উচ্চরক্তচাপ দেখা দিতে পারে। যারা প্রথম মা হতে চলেছেন এবং যারা পয়ত্রিশোর্ধ বয়সে গর্ভধারণ করছেন তাঁদের এই সমস্যা বেশি দেখা যায়।

ম্যাগনেসিয়াম সাপ্লিমেন্ট এবং হারবাল টনিক এক্ষেত্রে ভালো উপকার দিতে পারে।

পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া- ইনসমনিয়া বা ঘুমহীনতাঃ

  • ইনসমনিয়া গর্ভকালীন সময়ের আরেকটি গুরুত্বপূর্ণ সমস্যা। শারীরিক ও মানসিক অস্বস্তি, বিভিন্ন রকমের চাপ এসব থেকে মা ইনসমনিয়াতে ভুগতে পারেন।

বডি ম্যাসাজ, ঘুমের আগে গরম পানি দিয়ে গোসল করা, নিজেকে মানসিকভাবে সুস্থ রাখা ইত্যাদি ইনসমনিয়াতে সাহায্য করতে পারে। তবে এক্ষেত্রে স্লিপিং পিল খাওয়া কোনভাবেই উচিৎ নয়।

পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া- মর্নিং সিকনেসঃ

  • মর্নিং সিকনেস এই সময়ের আরেকটি বড় পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া। কেন এটি হয়ে থাকে তার উপযুক্ত কারণ এখন পর্যন্ত অজানা থাকলেও প্রায় সব গর্ভবতী মায়েরাই কমবেশি এই সমস্যায় ভুগে থাকেন।

সময়মতো খাবার খাওয়া, একটু পর পর একটু একটু করে খাওয়া, বিভিন্ন রকমের শুকনো ফল খাওয়া এই সময় মা’কে কিছুটা স্বস্তি দিতে পারে।